রবিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:১০
শিরোনাম
Thursday, May 25, 2017 9:30 am
A- A A+ Print

মর্গ্যানের শতকে দ. আফ্রিকাকে হারাল ইংল্যান্ড

সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ওয়েন মর্গ্যান। শেষটায় ঝড় তুলেছেন মইন আলি। দুই জনের দাপুটে ব্যাটিংয়ে বিশাল সংগ্রহ গড়া ইংল্যান্ড জিতেছে সহজেই। ব্যাটে-বলে বিবর্ণ দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ওয়ানডেতে হেরেছে ৭২ রানে।

এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

দারুণ ছন্দে আছেন ইংলিশ অধিনায়ক মর্গ্যান। আট ম্যাচের মধ্যে পেয়েছেন নিজের তৃতীয় শতক। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে স্বাগতিকদের সঠিক পথে রাখতে সামনে থেকে পথ দেখাচ্ছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

বুধবার লিডসের হেডিংলিতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ৩৩৯ রান করে ইংল্যান্ড। জবাবে ৪৫ ওভারে ২৬৭ রানে অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় ওভারেই জেসন রয়কে হারায় ইংল্যান্ড। জো রুটের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে অ্যালেক্স হেলসের ৯৮ রানের জুটিতে মিলে বড় সংগ্রহের ভিত। ৬০ বলে ৮টি চার ও একটি ছক্কায় ৬১ রান করে ফিরেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হেলস।

রুট, বেন স্টোকস বিদায় নেন থিতু হয়ে। দুই অঙ্কেই যেতে পারেননি জস বাটলার। ৩৫তম ওভারে ১৯৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ভীষণ বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা।

১১৭ রানের জুটিতে ইংল্যান্ডকে কক্ষপথে ফেরান মর্গ্যান-মইন। তাদের দাপুটে ব্যাটিংয়ে শেষ ১১ ওভারে ১১৩ রানের সংগ্রহ গড়ে স্বাগতিকরা।

৯৩ বলে ৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১০৭ রান করে ফিরেন মর্গ্যান। ওয়ানডেতে অধিনায়কের এটি একাদশ শতক।

৭৭ রানে অপরাজিত থাকেন সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাটিংয়ে খুব একটা ভালো করতে না মইন। এই অলরাউন্ডারের ৫১ বলের ঝড়ো ইনিংসটি গড়া পাঁচটি করে ছক্কা-চারে।
দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস ও আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো নেন দুটি করে উইকেট।

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই কুইন্টন ডি কককে হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ১১২ রানের চমৎকার জুটিতে শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে এগিয়ে নেন হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসি।

৭৬ বলে ৮টি চারে ৭৩ রান করা আমলাকে রিভিউ নিয়ে বিদায় করে ইংল্যান্ড। খেলার চিত্র পাল্টানোর শুরু এই উইকেট নিতেই। পরের ওভারে স্বাগতিকরা তুলে নেয় ফাফ দু প্লেসির উইকেট। ৬১ বলে খেলা তার ৬৮ রানের ইনিংসটি গড়া ৮টি চারে।

দুই থিতু ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর আর তেমন কোনো জুটি গড়তে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। ৩৮ বলে ৭টি চারে ৪৫ রান করে ফিরেন অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স।

শেষের কোনো ব্যাটসম্যান পারেননি নিজেকে মেলে ধরতে। অতিথিদের শেষ ৬ উইকেটের পতন হয় ৫৯ রানে।

৩৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার ক্রিস ওকস। দুটি করে উইকেট নেন দুই স্পিনার আদিল রশিদ ও মইন। ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সঙ্গে ডি ভিলিয়ার্স ও মরিসের জোড়া উইকেটে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন অলরাউন্ডার মইন।

আগামী শনিবার সাউথ্যাম্পটনে হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ৩৩৯/৬ (রয় ১, হেলস ৬১, রুট ৩৭, মর্গ্যান ১০৭, স্টোকস ২৫, বাটলার ৭, মইন ৭৭*, ওকস ৬*; রাবাদা ১/৬৩, পার্নেল ১/৪৭, মরিস ২/৬১, তাহির ০/৬৮, ফেলুকওয়ায়ো ২/৫৯, দুমিনি ০/৩৪)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৪৫ ওভারে ২৬৭ (আমলা ৭৩, ডি কক ৫, দু প্লেসি ৬৭, ডি ভিলিয়ার্স ৪৫, দুমিনি ১৫, মিলার ১১, মরিস ৫, পার্নেল ১৯, ফেলুকওয়ায়ো ৪, রাবাদা ১৯, তাহির ০*;ওকস ৪/৩৮, উড ১/৪৯, প্লানকেট ১/৪২, রশিদ ২/৬৯, স্টোকস ০/১৪, মইন ২/৫০, রুট ০/৪)

ফল: ইংল্যান্ড ৭২ রানে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: মইন আলি।

Comments

Comments!

 Natunsokal.com

মর্গ্যানের শতকে দ. আফ্রিকাকে হারাল ইংল্যান্ড

Thursday, May 25, 2017 9:30 am

সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ওয়েন মর্গ্যান। শেষটায় ঝড় তুলেছেন মইন আলি। দুই জনের দাপুটে ব্যাটিংয়ে বিশাল সংগ্রহ গড়া ইংল্যান্ড জিতেছে সহজেই। ব্যাটে-বলে বিবর্ণ দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ওয়ানডেতে হেরেছে ৭২ রানে।

এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

দারুণ ছন্দে আছেন ইংলিশ অধিনায়ক মর্গ্যান। আট ম্যাচের মধ্যে পেয়েছেন নিজের তৃতীয় শতক। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে স্বাগতিকদের সঠিক পথে রাখতে সামনে থেকে পথ দেখাচ্ছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

বুধবার লিডসের হেডিংলিতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ৩৩৯ রান করে ইংল্যান্ড। জবাবে ৪৫ ওভারে ২৬৭ রানে অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় ওভারেই জেসন রয়কে হারায় ইংল্যান্ড। জো রুটের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে অ্যালেক্স হেলসের ৯৮ রানের জুটিতে মিলে বড় সংগ্রহের ভিত। ৬০ বলে ৮টি চার ও একটি ছক্কায় ৬১ রান করে ফিরেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হেলস।

রুট, বেন স্টোকস বিদায় নেন থিতু হয়ে। দুই অঙ্কেই যেতে পারেননি জস বাটলার। ৩৫তম ওভারে ১৯৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ভীষণ বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা।

১১৭ রানের জুটিতে ইংল্যান্ডকে কক্ষপথে ফেরান মর্গ্যান-মইন। তাদের দাপুটে ব্যাটিংয়ে শেষ ১১ ওভারে ১১৩ রানের সংগ্রহ গড়ে স্বাগতিকরা।

৯৩ বলে ৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১০৭ রান করে ফিরেন মর্গ্যান। ওয়ানডেতে অধিনায়কের এটি একাদশ শতক।

৭৭ রানে অপরাজিত থাকেন সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাটিংয়ে খুব একটা ভালো করতে না মইন। এই অলরাউন্ডারের ৫১ বলের ঝড়ো ইনিংসটি গড়া পাঁচটি করে ছক্কা-চারে।
দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস ও আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো নেন দুটি করে উইকেট।

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই কুইন্টন ডি কককে হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ১১২ রানের চমৎকার জুটিতে শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে এগিয়ে নেন হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসি।

৭৬ বলে ৮টি চারে ৭৩ রান করা আমলাকে রিভিউ নিয়ে বিদায় করে ইংল্যান্ড। খেলার চিত্র পাল্টানোর শুরু এই উইকেট নিতেই। পরের ওভারে স্বাগতিকরা তুলে নেয় ফাফ দু প্লেসির উইকেট। ৬১ বলে খেলা তার ৬৮ রানের ইনিংসটি গড়া ৮টি চারে।

দুই থিতু ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর আর তেমন কোনো জুটি গড়তে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। ৩৮ বলে ৭টি চারে ৪৫ রান করে ফিরেন অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স।

শেষের কোনো ব্যাটসম্যান পারেননি নিজেকে মেলে ধরতে। অতিথিদের শেষ ৬ উইকেটের পতন হয় ৫৯ রানে।

৩৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার ক্রিস ওকস। দুটি করে উইকেট নেন দুই স্পিনার আদিল রশিদ ও মইন। ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সঙ্গে ডি ভিলিয়ার্স ও মরিসের জোড়া উইকেটে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন অলরাউন্ডার মইন।

আগামী শনিবার সাউথ্যাম্পটনে হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ৩৩৯/৬ (রয় ১, হেলস ৬১, রুট ৩৭, মর্গ্যান ১০৭, স্টোকস ২৫, বাটলার ৭, মইন ৭৭*, ওকস ৬*; রাবাদা ১/৬৩, পার্নেল ১/৪৭, মরিস ২/৬১, তাহির ০/৬৮, ফেলুকওয়ায়ো ২/৫৯, দুমিনি ০/৩৪)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৪৫ ওভারে ২৬৭ (আমলা ৭৩, ডি কক ৫, দু প্লেসি ৬৭, ডি ভিলিয়ার্স ৪৫, দুমিনি ১৫, মিলার ১১, মরিস ৫, পার্নেল ১৯, ফেলুকওয়ায়ো ৪, রাবাদা ১৯, তাহির ০*;ওকস ৪/৩৮, উড ১/৪৯, প্লানকেট ১/৪২, রশিদ ২/৬৯, স্টোকস ০/১৪, মইন ২/৫০, রুট ০/৪)

ফল: ইংল্যান্ড ৭২ রানে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: মইন আলি।

Comments

comments

X