বুধবার, ১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং, ৩রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:০১
শিরোনাম
Wednesday, May 3, 2017 2:09 am
A- A A+ Print

এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের একটি বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘একটি দলের সাধারণ সম্পাদক যা বলেন, তা থেকে বুঝে নেওয়া যায় তিনি এমনি এমনি ওই কথা বলছেন না। তাঁদের পালানোর সময় হয়ে গেছে। এ জন্য তাঁরা সম্পদ লুটানোর জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তারা পালানোর জন্য তৈরি হোক, বিএনপি জনগণের অধিকার রক্ষার জন্য তৈরি হচ্ছে।’

মঙ্গলবার রাতে শ্রমিক দলের নেতা-কর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে তাঁর গুলশানের কার্যালয়ে দেখা করতে গেলে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গত শনিবার চট্টগ্রামে নগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় বলেন, ক্ষমতা বেশি দিন থাকে না। তাই ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন না। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে টাকাপয়সা নিয়ে পালাতে হবে। সেটা কি ভাবেন না?

খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপি নির্বাচনে যেতে চায়। তবে সে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে, শেখ হাসিনার অধীনে নয়। তিনি অভিযোগ করেন, শেখ হাসিনার অধীনে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে, তার কোনোটাই সুষ্ঠু হয়নি।

বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, অনেকেই বলেন, বসে আছেন কেন? এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কিছু একটা করার সময় হয়নি। গণতন্ত্রের মাধ্যমে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনা হবে। সে জন্য প্রয়োজন সংগঠন। বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনগুলো ইতিমধ্যেই পুনর্গঠিত হয়েছে, হচ্ছে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ খালেদা জিয়া বলেন, লুটেরাদের জনগণ কখনো ভোট দেবে না। ৫ জানুয়ারি তারা ১৫৪টি আসন চুরি করে নিয়েছিল। এবার সেটা সম্ভব হবে না। গণতন্ত্রে যারা বিশ্বাস করে, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আসে তাদের এটা মাথায় রাখা উচিত যে, জনগণ আবার ভোট দেবে।

এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Comments

Comments!

 Natunsokal.com

এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি

Wednesday, May 3, 2017 2:09 am

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের একটি বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘একটি দলের সাধারণ সম্পাদক যা বলেন, তা থেকে বুঝে নেওয়া যায় তিনি এমনি এমনি ওই কথা বলছেন না। তাঁদের পালানোর সময় হয়ে গেছে। এ জন্য তাঁরা সম্পদ লুটানোর জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তারা পালানোর জন্য তৈরি হোক, বিএনপি জনগণের অধিকার রক্ষার জন্য তৈরি হচ্ছে।’

মঙ্গলবার রাতে শ্রমিক দলের নেতা-কর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে তাঁর গুলশানের কার্যালয়ে দেখা করতে গেলে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গত শনিবার চট্টগ্রামে নগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় বলেন, ক্ষমতা বেশি দিন থাকে না। তাই ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন না। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে টাকাপয়সা নিয়ে পালাতে হবে। সেটা কি ভাবেন না?

খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপি নির্বাচনে যেতে চায়। তবে সে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে, শেখ হাসিনার অধীনে নয়। তিনি অভিযোগ করেন, শেখ হাসিনার অধীনে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে, তার কোনোটাই সুষ্ঠু হয়নি।

বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, অনেকেই বলেন, বসে আছেন কেন? এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কিছু একটা করার সময় হয়নি। গণতন্ত্রের মাধ্যমে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনা হবে। সে জন্য প্রয়োজন সংগঠন। বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনগুলো ইতিমধ্যেই পুনর্গঠিত হয়েছে, হচ্ছে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ খালেদা জিয়া বলেন, লুটেরাদের জনগণ কখনো ভোট দেবে না। ৫ জানুয়ারি তারা ১৫৪টি আসন চুরি করে নিয়েছিল। এবার সেটা সম্ভব হবে না। গণতন্ত্রে যারা বিশ্বাস করে, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আসে তাদের এটা মাথায় রাখা উচিত যে, জনগণ আবার ভোট দেবে।

এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Comments

comments

X